ফ্রিলান্সিং কি ও কেন করবেন!!! 

17 Aug 2022    Bipasha Jahan Bipa

ফ্রিলান্সিং কি ও কেন করবেন!!! 

 

আমরা  সবাই ফ্রিলান্সিং এর নাম শুনেছি। কিন্তু ভালোভাবে জানি না ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কে। 

বর্তমান ২০২২ সালে এসে অাপনি বুঝতেই পারছেন ফ্রিলান্সিং এর চাহিদা দিন দিন বেড়েই চলেছে।

 

ঘরে বসে ইনকাম করার সুযোগ কে না চাইবে অার যদি সেটা হয় একটি জব এর চেয়ে দ্বিগুণ ইনকাম তবে তো কথাই নেই। সেটা হবে সোনায় সোহাগা।

 

অাজকের পোস্ট এ অামরা জানবো ফ্রিলান্সিং সম্পর্কে। ফ্রিলান্সিং কি,  ফ্রিলান্সিং কেন করবেন? কিভাবে করবেন? 

 

ফ্রিলান্সিং কি

ফ্রিলান্সিং হলো স্বাধীন বা মুক্ত পেশা। ফ্রিলান্সিং হলো এমন কোন কাজ যা অাপনি ঘরে বসে বা কোন প্রতিষ্ঠান কিংবা কোন নিদিষ্ট ব্যাক্তির অধীনে অাপনি অাপনার ইচ্ছে মত কাজ টা করতে পারবেন।

 

ফ্রিলান্সিং হলো অাপনি যে কাজে দক্ষ সে কাজটি অনলাইনে অন্যকে করে দিয়ে অায় করাকে বুঝায়।

যেমন ধরুন কারো ওয়েবসাইট লাগবে অাপনি তার ওয়েবসাইট বানিয়ে দিলেন। কারো কোন প্রোডাক্ট মার্কেটিং এর কন্টেন্ট লিখে দিলেন। 

এ কাজগুলো করার জন্য সে অাপনাকে পেমেন্ট করবে। যদি একটা কন্টেন্ট লিখতে ক্লাইন্ট অাপনাকে ৫০০ টাকা দেয়, তবে এমন ১০টা কন্টেন্ট অাপনি অনায়াসে লিখতে পারবেন এক দিনে। বুঝতেই পারছেন বেশ ভালোই ইনকাম হবে।

এভাবেই ঘরে বসে অায় করতে পারবেন অাপনি খুব সহজেই।

 

এছাড়া ফ্রিল্যান্সিং শিখে আপনি মূলত ঘরে বসেই দেশের বাইরেও কাজ করে বৈদেশিক মুদ্রা আয় করতে পারবেন। আপনি অনলাইনে ফাইবার বা অাপওয়ার্ক এ কাজ পাবেন আর অনলাইনেই কাজ করে জমা দিয়ে আপনার প্রাপ্য টাকা বুঝে নিবেন। তবে এজন্য অাপনাকে ফাইবার বা অাপওয়ার্ক এ নিজের প্রফেশনাল একটি পোর্টফোলিও  থাকতে হবে। যেখানে অাপনার সব ডাটা সাজানো থাকবে। 

 

মার্কেট প্লেসে দুই ধরনের মানুষ থাকে।

১.ফ্রিল্যান্সার ও

২.অাউটসোর্সিং

 

অাউটসোর্সিং ও ফ্রিল্যান্সিং এক বিষয় নয়।

অাপনাকে দিয়ে যারা কাজ করিয়ে নিবে তারা মূলত অাউটসোর্সিং করে।

অার যারা কাজ করে দেয় তারা মূলত ফ্রিল্যান্সার। 

মানে যখন অাপনি অন্যের কাজ করে দিবেন তখন অাপনি হবেন ফ্রিলান্সার।

 

অার অাপনি যদি অন্যকে দিয়ে কোন কাজ করিয়ে নেন তবে তা অাপনি অাউটসোর্সিং করলেন।

 

ফ্রিল্যান্সার হতে হলে  অাপনাকে অনেক বেশি স্কিল হতে হবে।

শুরুর দিকে অাপনাকে প্রচুর প্রাকটিস করতে হবে। অাপনাকে কোন একটা বিষয়ে ১০০%  দক্ষ হতে হবে।

তাই অনেক বিষয়ে না গিয়ে কোন একটা টপিক নিয়ে ভালোভাবে জানার চেষ্টা করতে হবে শুরুর দিকে।

ফ্রিল্যান্সিং বিভিন্ন ধরনের কাজের হতে পারে।

 

তবে ফ্রিল্যান্সিংয়ের জনপ্রিয় কাজ হলো 

 

১. ওয়েব ডেভেলপমেন্ট

২. ওয়েব ও গ্রাফিক ডিজাইন

 ৩.কন্টেন্ট রাইটিং

৪. সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (SEO)

৫.সোস্যাল মিডিয়া মার্কেটিং

 

এবং এই ৫টি কাজ পাওয়া যায় সবচেয়ে বেশি। অাপনি জেনে অবাক হবেন যে, বর্তমান এ বাংলাদেশের মানুষ ডিজিটাল মার্কেটিং করে সবচেয়ে বেশি ইনকাম করছে। কিন্তু  ডিজিটাল মার্কেটিং করে অাপনি দ্রুত ইনকাম শুরু করতে পারলেও গ্রাফিকস ডিজাইন,  ওয়েব ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট এ দক্ষ হতে পারলে অাপনার ইনকাম দ্বিগুণ হবে। 

 

এছাড়াও ফ্রিল্যান্সিং এ কাজ করতে হলে অাপনাকে ইংরেজি এর উপর ভালো দক্ষ হতে হবে। অাপনাকে ইংরেজি পড়া বা লিখার পাশাপাশি স্পোকেন এ-ও দক্ষ হতে হবে।

কারন যখন কাজ পাবেন তখন বিদেশি বায়াররা অাপনার সাথে সরাসরি কথা বলবে। স্কাইপ এ কিংবা হোয়াইটঅ্যাপে। অাপনাকে ইংরেজিতে তাকে বোঝাতে হবে অাপনি কি কি কাজে দক্ষ ও কোথায় কোথায় কাজ করেছেন। অাপনার কাজ করার প্রমান ও স্ক্রিনশট ও দেখাতে হতে পারে।

তাই কাজ শেখার পাশাপাশি ইংরেজি ও শিখে নিতে হবে। খুব বেশি কঠিন নয়,  শুধু দরকার নিয়মিত চর্চা ও অদম্য ইচ্ছে। 

 



ফ্রিল্যান্সিং করে কত টাকা আয় করা যায়?

শুরুর দিকে ইনকাম কম হলেও একসময় নিজের ইনকাম দেখে নিজেই অবাক হবেন।

মাসে কমপক্ষে ১ লক্ষ টাকা ইনকাম করা যাবে অনায়াসে। শুরুর দিকে কাজ পেতে দেরি হবে,  অল্প এমাউন্ট হলেও কোন অফার ফেরত না দিয়ে করে দিন। একবার অফার পাওয়া ও অানিং শুরু হলে সেই এমাউন্ট দেখে নিজেই অবাক হয়ে বলবেন অারও অাগে কেন ফ্রিলান্সিং এ অাসলাম না। শুধু ধৈর্য ধরে কাজ শিখতে হবে। অার সময়ের জন্য একটু অপেক্ষা। বাস অাপনার সাফল্য থামায় কে?

 

অাপনি যদি ফ্রিল্যান্সিং করতে চান তবে অবশ্যই অাপনাকে ভালো ভাবে জানতে হবে। অার জানার জন্য অাপনাকে অবশ্যই কোর্স করতে হবে। 

 

অনেকেই অাপনাকে ফ্রি কোর্স এর কথা বলবে কিন্তু সে হয়তো এক দিন বা দুই দিন অাপনাকে শেখাবে। 

কে তার সময় অপচয় করে অাপনাকে সময় দিবে বলুন?? 

 

তাই ফ্রি শিখতে যাবেন না।  ফ্রিল্যান্সিং শিখতে পারলে অাপনি জীবনে হাজার টাকা অায় করতে পারবেন যদি অাপনি দক্ষ হতে পারেন।

 

কিন্তু ফ্রি শিখে অদক্ষতার কারনে কখনই অাপনি কাজ পাবেন না। 

পাশাপাশি লাগবে ধৈর্য ও প্রচুর প্র্যাকটিস। কিভাবে প্র্যাকটিস করবেন তাও জানতে হবে।

 তাই অাপনি @Zariq এর কাছ থেকে শিখে নিতে পারেন ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে করতে হয়। 

নিচের যে কোন একটি বিষয়ে ভালোভাবে দক্ষ হয়ে অাপনি ফ্রিল্যান্সিং করতে পারবেন। 

 

•গ্রাফিক্স ডিজাইন :

https://zariq.com.bd/training/11/creative-graphic-design-training/62f7e70aad406

 

 

•ডিজিটাল মার্কেটিং :

https://zariq.com.bd/training/15/digital-marketing/62f7e70aad406


 

•ওয়েবসাইট ফর ফ্রিল্যান্সিং:

https://zariq.com.bd/training/10/website-for-freelancing/62f7e70aad406

 

•বেসিক কম্পিউটার লার্নিং :

https://zariq.com.bd/training/16/basic-computer-and-office-expert-learning/62f7e70aad406



 

•কন্টেন্ট রাইটিং :

https://zariq.com.bd/training/17/content-writing/62f7e70aad406

 

•ওয়েব ডিজাইন এন্ড ডেভেলপমেন্ট  

https://zariq.com.bd/training/6/web-application-development/62f7e70aad406

 

•সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট :

https://zariq.com.bd/training/12/software-development-for-job-placement/62f7e70aad406



 

তাহলে অনলাইনে ফ্রিলান্সিং করার জন্য যে কোন একটি কোর্স এখনি এনরোল করুন @Zariq এর সাথে।

 

এছাড়া আরো যে সার্ভিসে নিতে পারবেন : 

ই কমার্স ওয়েবসাইট :

https://zariq.com.bd/service/1/ecommerce-solution/62f7e70aad406
 

পজ সফটওয়্যার :

https://zariq.com.bd/service/13/pos-erp-software/62f7e70aad406

 

ডিপো ডিলার ম্যানেজমেন্ট :

https://zariq.com.bd/service/14/depot-dealer-management-software/62f7e70aad406


 

কর্পোরেট ওয়েবসাইট :

https://zariq.com.bd/service/8/corporate-website/62f7e70aad406


 

একাউন্টিং সফটওয়্যার : 

https://zariq.com.bd/service/9/accounting-software/62f7e70aad406